Health Tips

চুলের যত্ন নেওয়ার উপায়

(চুলের যত্ন নেওয়ার উপায় গুলো আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। মানুষের সৌন্দর্য অনেক গুণে বৃদ্ধি করে তার সুন্দর চুল। কিন্তু আমরা চুলের যত্ন সেভাবে নেই না যখন আমাদের চুল পড়া শুরু হয় তখন আমরা নানা উপায় খুঁজি চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য। তাই সব সময় আমাদের চুলের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে এবং সঠিক নিয়মে যত্ন নিতে হবে। আমরা যদি সঠিকভাবে চুলের যত্ন নিয়ে থাকি তাহলে আমাদের চুল আরও সিল্কি এবং ঘন হয়ে উঠবে যা আমাদেরকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবে। আশা করি সবাই আমার এই পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পড়বেন তাহলে অবশ্যই উপকৃত হবেন।

চুলের যত্ন নেওয়ার উপায়

আশা করি চুলের যত্ন নেওয়ার উপায়গুলো খুব ভালোভাবে সবাই অনুসরণ করবেন। কি কি নিয়ম এবং খাবার কি খেলে আপনাদের চুলগুলো সুন্দর হয়ে উঠবে তা নিয়ে আজকে আলোচনা করবো।

১। সকালে ঘুম থেকে উঠে চুলগুলো আঁচড়িয়ে নিন

সকালে ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হওয়ার পর সুন্দর করে চুল গুলো আঁচড়িয়ে নিবো।কারন হলো সারারাত ঘুমানোর পর আমাদের চুল গুলো জট বেধে যায় আর যার কারনে চুল ডামেজ হওয়ার সম্ভবনা থাকে এবং চুল আঁচড়ানো খুবই জরুরি এতে করে আমাদের চুলের গোড়ায় যে তেল জমা হয়ে থাকে সেগুলো পুরো মাথায় ছড়িয়ে যায় এবং চুলের গোড়ার রক্ত সঞ্চালন অনেক বেড়ে যায় তাই আমরা ঘুম থেকে উঠে চুল আঁচড়িয়ে নিবো।

২। প্রতিদিন শ্যাম্পু করা থেকে বিরত থাকুন

আমাদের মাঝে কিছু লোক আছে যারা প্রতিদিন শ্যাম্পু করে থাকে কিন্তু এটি ভুল। আমাদের মাথার ত্বকে তেল গুলো আমাদের চুলের জন্য খুবই প্রয়োজন আমরা যদি প্রতিদিন শ্যাম্পু করি তাহলে মাথার ত্বকের তেল গুলো ধুয়ে যায় যার ফলে চুল অনেক রাফ ও ড্রাই হয়ে যায়। আবার শ্যাম্পু না করলে বিপদ তাহলে আমাদের মাথায় চুলের গোড়ায় ময়লা জমে ও খুশকি হয়ে চুল পড়ে যেতে পারে তাই চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু ব্যবহার করা উচিত।আমি মনে করি সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন শ্যাম্পু করা উচিত।

৩। বাইরে থেকে এসে চুল ধুয়ে নিন

যারা দীর্ঘ সময়ের জন্য বাইরে থাকেন তারা বাসায় ফিরে চুল গুলো ধুয়ে নিলে ভালো হবে। কারণ হচ্ছে বাইরে ধুলাবালির কারণ চুলে ময়লা জমা হয়ে ডামেজ হয়ে যেতে পারে।

৪। পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করুন

চুল ভাল রাখতে হলে পুষ্টিকর খাবার অবশ্যই গ্রহণ করতে হবে। খাবারের তালিকায় শাকসবজি ফলমূল এসব বেশি রাখুন। তাহলে আপনার চুলের গোড়া মজবুত এবং সুন্দর হবে

৫। নারিকেল তেল ব্যবহার করুন

চুলের যত্ন নেওয়ার উপায় গুলোর এর মধ্যে অনেক কার্যকরী একটি উপাদান হলো নারিকেল তেল। চুলে বিশুদ্ধ নারিকেল তেল ব্যবহার করলে চুল পড়া যেমন বন্ধ হবে তার সাথে চুল আরো ঘন হবে। তাই গোসল করার পর চুলে নারিকেল তেল দেওয়ার চেষ্টা করুন। অনেকে আছেন যারা তেল দেওয়া পছন্দ করেন না তাদের জন্য আমার পরামর্শ থাকবে গোসলের ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা আগে চুলে তেল ব্যবহার করুন তারপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল গুলো ধুয়ে নিন।

৬। চুল ভেজা থাকলে আঁচড়াবেন না

আমরা গোসল করার পর চুল আচড়াই কিন্তু এটা ভুল। কারণ চুল ভেজা অবস্থায় অনেক নরম থাকে যার ফলে আচঁড়ানো সাথে চুল উঠে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি তাই চুল ভেজা থাকলে আঁচড়ানো থেকে বিরত থাকুন। আমরা শ্যাম্পু করার সময় চুল জুড়ে টানাটানি করি এই কাজটা করো ঠিক না আস্তে আস্তে ম্যাসেজ করে শ্যাম্পু করতে হবে।

৭। ডিম ব্যবহার করুন

চুলের যত্ন নেওয়ার উপায় গুলোর মধ্যে এই উপায়টি খুবই কার্যকরী। মাঝে মাঝে চুলে ডিম ব্যবহার করুন কারণ ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন ও সালফার যা চুলের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় একটি উপাদান।

৮। ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন

চুল পরিষ্কার করার জন্য আমরা সব সময় ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করব। কারণ গরম পানি চুলের জন্য অনেক ক্ষতিকর গরম পানি চুলকে ড্যামেজ করে দেয় তাই সব সময় ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল পরিষ্কার করবো।

৯। চুলে অতিরিক্ত হিট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন

মন মত চুলের স্টাইল করার জন্য আমাদের চুলের হিট দেওয়ার প্রয়োজন পরে। এবং যাদের চুল একটু কোকড়ানো তারা চুলে হিট দিয়ে সিল্কি করে। কিন্তু চুলে হিট দেওয়ার কারণে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হয়। আবার আমাদের দেশে অনেক অদক্ষ লোক আছে যারা চুলে হিট দেওয়ার সময় জ্বলে ফেলে তাই সাবধানতার সাথে হিট দেওয়া উচিত। এবং অতিরক্ত হিট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। হিট দিলে চুল ড্যামেজ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে।

১০। ডাক্তারের পরামর্শ নিন

যাদের চুল অতিরক্ত ড্যামেজ হয়ে গেছে বা চুল পড়ছে তারা খুব দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন। চুল নিয়ে অবহেলা করবেন না কারণ চুল মানুষের সৌন্দর্য কে বহুগুণে বাড়িয়ে দেয়।

Follow topics bangla facebook page

আরো পড়ুনঃ

স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করার উপায়। 2021

মন ভালো করার উপায়।2021

Topicsbangla

জানা ও অজানা বিষয় গুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরা আমাদের মূল লক্ষ।আমাদের সাথেই থাকুন আশা করি উপকৃত হবেন।☺☺

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button