Beauty tips

ত্বকের ধরন বুঝে রূপচর্চা করুন। ত্বকের ধরন বোঝার উপায়

আজকে ত্বকের ধরন বুঝার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করার চেষ্টা করব। এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে ত্বকের ধরন বোঝার উপায় সম্পর্কে জেনে লাভ কি? আমি মনে করি প্রতিটি মানুষের নিজের ত্বকের সম্পর্কে ধারণা রাখা উচিত। এর কারণ হচ্ছে আমাদের প্রতিটি মানুষের ত্বকের ধরন  এক না, যার ফলে ত্বকের ধরন অনুযায়ী যত্ন এবং রূপচর্চা করতে হয়। আপনার ত্বক যদি ভাল রাখতে চান তাহলে ত্বকের ধরন অনুযায়ী যত্ন নিতে হবে। তাছাড়া ত্বকে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। অনেকেই আছেন যারা না বুঝে রূপচর্চার জন্য প্রোডাক্ট ব্যবহার করেন যা একদমই ঠিক না। প্রতিটি কোম্পানি আলাদা আলাদা ত্বকের জন্য আলাদা প্রোডাক্ট তৈরি করে তাই আপনার ত্বকের ধরন বুঝে তারপর প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে হবে তাহলে সর্বোচ্চ ফলাফল পাবেন।

ত্বকের ধরন বোঝার উপায়

কার ত্বক কিরকম সেটা বোঝার জন্য ত্বকের কিছু লক্ষণ রয়েছে সে লক্ষণগুলো খেয়াল করলেই আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ত্বক কোন ধরনের। সাধারণভাবে ৫ ধরনের  ত্বক হয়ে থাকে।

  • সাধারণ
  • তৈলাক্ত
  • শুষ্ক
  • সেনসিটিভ বা সংবেদনশীল
  • মিশ্র

প্রতিটি ত্বকের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে, সেই বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী আপনার ত্বকের ধরণ বুঝতে পারবেন। তাহলে চলুন ত্বকের ধরন বোঝার উপায় সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

১। সাধারণ

সাধারণত ত্বক খুব বেশি তৈলাক্ত নয় আবার খুব বেশি শুষ্ক নয় আবার খুব বেশী সেনসিটিভ নয়। এক কথায় বলতে গেলে এই ত্বকের ভারসাম্য বজায় থাকে। আপনার ত্বকের যদি  তৈলাক্ত ভাব বা শুষ্কভাব বোঝা না যায় তাহলে বুঝে নিতে হবে আপনার ত্বকের ধরন হচ্ছে সাধারণ। সাধারণ ত্বকে টিস্যু চেপে ধরলে হালকা তেলতেলে ভাব লক্ষ করবেন।

যত্ন নেওয়ার টিপসঃ যেহেতু এই ত্বকের ভারসাম্য ঠিক থাকে তাই বেশি যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন হয়না। তারপরও চেষ্টা করবেন মুখ সবসময় পরিষ্কার রাখার জন্য এবং বেশি বেশি পানি পান করুন।

২। তৈলাক্ত

তৈলাক্ত ত্বকের মানুষগুলোকে একটু বেশি সমস্যায় পড়তে হয়। কারণ তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রে প্রায় মুখের অধিক অংশেই তেলতেলে ভাব থাকে। আপনার ত্বক যদি বেশি তেলতেলে ভাব হয়ে থাকে এবং ব্রণের সমস্যা দেখা দেয় তাহলে আপনার ত্বকের ধরন হচ্ছে তৈলাক্ত। তৈলাক্ত ত্বক হওয়ার ফলে চেহারার উজ্জলতা কমিয়ে দেয়।

যত্ন নেওয়ার টিপসঃ  চেষ্টা করবেন মুখ সবসময় পরিষ্কার রাখার এবং প্রতিদিন দুইবার ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করবেন। যেহেতু এই ত্বকে ব্রণ হওয়ার সমস্যা বেশি হয় সেক্ষেত্রে ব্রণ হলে কখনো নখ লাগাবেন না কারণ লাগানোর ফলে সংক্রামক সৃষ্টি হতে পারে। শসার রস দিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে পারেন।

৩। শুষ্ক

শুষ্ক ত্বক খুব শুকনো হয়ে থাকে। শুষ্ক ত্বকে কোন তৈলাক্ত ভাব দেখা দেয় না। আপনার ত্বক যদি খসখসে, রুক্ষ ও অমৃসন ত্বক হয়ে থাকে তাহলে আপনার ত্বকের ধরন হচ্ছে শুষ্ক। অতিরিক্ত শুষ্ক হওয়ার কারণে মাঝে মধ্যে চুলকানি ভাব দেখা দিতে পারে।

যত্ন নেওয়ার টিপসঃ  চেষ্টা করবেন দিনে একবার মুখ পরিষ্কার করার জন্য বেশি পানি মুখে লাগাবেন না। একবারের বেশি ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করবেন না। পরামর্শ থাকবে প্রতিবার মুখ পরিষ্কার করার পর মশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন।

আরো পড়ুনঃ  নাইট ক্রিম কোনটা ভালো? নাইট ক্রিম ব্যবহারের নিয়ম

৪। সেনসিটিভ বা সংবেদনশীল

সেনসিটিভ ত্বকের অধিকারী মানুষদের একটু বেশি সমস্যায় পড়তে হয়। সেনসিটিভ ত্বকের একটুতেই লাল হয়ে যায় এবং জ্বালাপোড়া করে। রূপচর্চার কোন প্রোডাক্ট ব্যবহার করার পরে আপনার ত্বকে যদি চুলকানি, জালাপোড়া মতো সমস্যা দেখা দেয় তাহলে আপনার ত্বকের ধরন হচ্ছে সেনসিটিভ।

যত্ন নেওয়ার টিপসঃ  সেনসিটিভ ত্বকের জন্য আমার প্রথম পরামর্শ থাকবে রূপচর্চার প্রোডাক্ট গুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন। আপনি চাইলে প্রাকৃতিক উপাদান গুলো দিয়ে রূপচর্চা করবেন।

৫। মিশ্র

মিশ্র ত্বকের মাঝে কমবেশি সব ধরনের ত্বকের বৈশিষ্ট্য রয়েছে। মিশ্র ত্বক কিছুটা শুষ্ক কিছুটা তৈলাক্ত আবার কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে থাকে। টিস্যু পেপারে যদি আপনার নাক, কপাল, থুতনি থেকে তেল উঠে আসে তাহলে বুঝতে হবে আপনার ত্বকের ধরণ মিশ্র।

যত্ন নেওয়ার টিপসঃ  কখনো মেকআপ নিয়ে ঘুমাতে যাবেন না।আর UVA, UVB রশ্নি প্রতিরোধ করে এমন টাইপের সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করবেন।

শেষ কথা

প্রতিটি মানুষের ত্বকের ধরন সম্পর্কে জ্ঞান থাকা জরুরি। তাই আজকে আমি চেষ্টা করেছি ত্বকের ধরন বোঝার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার। আশা করি আপনারা ত্বকের ধরন বোঝার উপায় সম্পর্কে আর্টিকেলটি পড়ে আপনাদের ত্বকের ধরন সম্পর্কে জানতে পারবেন। আমার এই ত্বকের ধরন বোঝার উপায় সম্পর্কের আর্টিকেলটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

Follow topics bangla facebook page

Topicsbangla

জানা ও অজানা বিষয় গুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরা আমাদের মূল লক্ষ।আমাদের সাথেই থাকুন আশা করি উপকৃত হবেন।☺☺

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button