Health Tips

কোমরের ব্যথা কমানোর উপায় গুলো দেখে নিন

কোমরের ব্যথা কমানোর উপায় সম্পর্কে আজকে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব। কমবেশি সব বয়সের মানুষের কোমরের ব্যথার সমস্যা পোহাতে হয়। আর এই কোমরের ব্যথা যে কতটা যন্ত্রণাদায়ক সেটা শুধুমাত্র যার হয় সেই বুঝতে পারে। দীর্ঘদিন ধরে যারা কোমরের ব্যথার বা হঠাৎ কোমরের ব্যথার ভোগান্তির মধ্যে আছেন, তাদের জন্য কোমরের ব্যথা কমানোর উপায় এই  আর্টিকেলটি সহায়ক হবে।

কোমরের ব্যথা হওয়ার কারণ

বিভিন্ন কারণেই কোমরের ব্যথা হতে পারে, তার মধ্যে উল্লেখযগ্য কিছু কারণ রয়েছে যেগুলো কারণে কোমরে  ব্যথা হয়।

বয়সঃ  বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের হাড়ের ক্ষয় হওয়া শুরু করে, আমাদের হাড়ের মধ্যে ফাঁকা জায়গা থাকে। আর এটি পূরন থাকে তালের শাঁসের মত চাকতি দিয়ে। কোন কারণে যদি এই ডিস্ক বের হয়ে যায় তখন স্নায়ুমূলের ওপর চাপ পড়ে। যার কারণে কোমরে ব্যথা অনুভব হতে পারে।

ঠান্ডাঃ  শীতকালে হাড়ের ব্যথার সমস্যায় বেশি পড়তে হয়। কোন কারণে যদি শীতকালের ঠান্ডা বাতাস হাড়ে  লাগে তাহলে কিন্তু সেই স্থানে ব্যথা হতে পারে। শীতকালে বাইক চালানোর সময় মেয়ে ঠান্ডা বাতাসের ফলে কোমরে ব্যথা হতে পারে।

ক্যালসিয়ামের অভাবঃ  যদি কারো হাড়ে ক্যালসিয়ামের অভাব থাকে তাহলে তার হাড় দুর্বল হবে এটাই স্বাভাবিক, আর দুর্বল হাড়ে ব্যথা সৃষ্টি হওয়া খুবই সহজ। হাড়ে ক্যালসিয়ামের অভাবে ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

টিউমার বা ইনফেকশনঃ  অনেক সময় হাড়ের মধ্যে টিউমার বা ইনফেকশনের মতন সমস্যা দেখা দেয়, আর এই টিউমার বা ইনফেকশন হওয়ার জন্য হাড়ে ব্যথা  তৈরি হয় যা কোমরে ব্যথা হওয়ার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

ওজন বৃদ্ধিঃ ওজন যদি উচ্চতা অনুযায়ী বেশি হয়ে থাকে বা যাদের ওজন একটু বেশি তাদের কোমরে ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। এর কারণ হচ্ছে ওজন বৃদ্ধি হওয়ার ফলে, শরীরের ওজন হাড় বহন করতে পারে না। যার কারণে হাড়ে ব্যথা অনুভব হয়।

আরো পড়ুনঃ গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা দূর করার উপায়

কোমরের ব্যথা কমানোর উপায়

কোমরের ব্যথা দূর করার জন্য বা কোমরের ব্যথা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য, জীবনযাত্রা পরিবর্তন আনতে হবে। আমাদের মাঝে কিছু বদঅভ্যাস রয়েছে যেগুলোর কারণে কোমরের ব্যথার মতন সমস্যায় পড়তে হয়। তাহলে চলুন কোমরের ব্যথা দূর করার উপায় গুলো জেনে নেওয়া যাক।

১।খাবার

হাড়ে ক্যালসিয়ামের অভাবে দুর্বল হয়ে পড়ে, যার কারণে ব্যথা সৃষ্টি হয়। আর হাড়ে ক্যালসিয়ামের অভাব হওয়ার কারণ হচ্ছে পুষ্টিহীনতা। তাই বেশি পরিমাণের  পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করতে হবে। শাকসবজি, দুধ, মাছ, মাংস এই ধরনের খাবার বেশি খেতে হবে যেগুলোতে ক্যালসিয়াম ও প্রোটিনের পরিমাণ বেশি থাকে।

২। গরম পানির সেক

কোমরের ব্যথা প্রচুর যন্ত্রণাদায়ক হয়ে থাকে যা সহ্য করা খুবই কষ্টদায়ক। তাই তাৎক্ষণিক সেই ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য গরম পানির সেঁক ব্যবহার করতে পারে।

কোমরের ব্যথা কমানোর উপায়

উপরের ছবির মত একটি ব্যাগ ক্রয় করবেন, এর বাজার মূল্য ৩০০ থেকে ৪০০ টাকার মতন হবে।

এই ব্যাগের মধ্যে গরম পানি ঢুকিয়ে কোমরের উপর আস্তে আস্তে সেক দিন। গরম পানির সেকের ফলে, যন্ত্রণাদায়ক ব্যথা থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি পাবেন।

৩। আদা

কোমরের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য, এক টুকরো আদা মুখে নিয়ে চিবাতে পারেন। আমাদের হাড়ের মধ্যে কিছু নার্ভ রয়েছে যেগুলো আদা খাওয়ার ফলে ভালো থাকে। নিয়মিত আদা খাওয়ার অভ্যাস করলে হাড়ের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৪। লেবু

লেবুর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি আর ভিটামিন সি ব্যথা কমানোর জন্য কার্যকরী উপাদান। তাই কোমরের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে লেবুর শরবত পান করতে পারেন।

৫। একটানা বসে থাকা

বর্তমান সময়ে দীর্ঘ সময় কাজ করার প্রয়োজন হয়, অনেকের একটানা বসে থেকে কম্পিউটারের কাজ করে থাকেন। যা শরীরের ও মেরুদন্ড হাড়ের উভয়ের জন্য ক্ষতিকারক। বসে থাকার সময় সঠিক চেয়ার নির্ধারণ করুন, যে চেয়ারে বসে থাকলে পিছনের মেরুদন্ড মোটামুটি ভাবে সোজা থাকে। আর এক ঘন্টা পর পর ১০ থেকে ১৫ মিনিটের  জন্য বিশ্রাম নিতে পারেন, বা সাধারণ কিছু ব্যায়াম করে নিতে পারেন। তাহলে শারীরিক ভাবে সুস্থ থাকবেন।

৬। দুধ ও হলুদ

কোমরের ব্যথা কমানোর উপায় গুলোর মধ্যে দুধ ও হলুদ খুবই কার্যকরী একটি উপায়। আপনি যদি কোমরের ব্যথা থেকে তাড়াতাড়ি মুক্তি পেতে চান তাহলে গরম দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে খেতে পারেন বা দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে গরম করে খেতে পারেন। কোমরের ব্যথা দূর করার জন্য এটি খুবই ভালো কাজ করে।

৭। কলা

কোমরের ব্যথা কমানোর জন্য কলা খুবই ভালো কাজ করে। কারণ কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম, আর যারা কোমরের ব্যথা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের পেশী গুলো শক্ত হয়ে যায়। যার কারণে ব্যথা অনুভব হয়, ম্যাগনেসিয়াম পেশী শিথিল করতে সাহায্য করে, যার ফলে ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৮। ব্যায়াম

শুধুমাত্র কোমরের ব্যথা কমানোর জন্য নয় শারীরিক ভাবে সুস্থ থাকার জন্য ব্যায়াম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর কোমরে ব্যথা হলে এই ব্যায়ামগুলো করতে পারেন

ওয়াল সিটস

পিঠে বা কোমরের ব্যথা কমানোর জন্য এই ব্যায়ামটি খুবই কার্যকরী। এই ব্যায়ামটি করার নিয়ম হচ্ছে কোনো চেয়ারে বসার মতন করে দেয়ালের সাথে বসতে হবে।

প্রথমে দেয়াল বরাবর পিঠ ঠেকিয়ে সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে , তারপর আস্তে আস্তে দেয়ালে পিঠ ঠেকানোর অবস্থায় হাঁটু ভাঁজ করে চেয়ারে বসার মতন অবস্থা করতে হবে। এভাবে ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ড থাকতে হবে। এভাবে ১০ থেকে ১২ বার পুনরাবৃত্তি করতে হবে, চেষ্টা করুন প্রতিদিন এই ব্যায়ামটি করার।

প্রেস- আপ ব্যাক এক্সটেনশন

কোমরের ব্যথা কমানোর জন্য এই ব্যায়ামটি খুব ভালো কাজ করে।

প্রথমে মেঝেতে উপুড় হয়ে শুতে হবে তারপর দুই কনুইয়ের সাহায্যে আস্তে আস্তে উপরের দিকে কাধ তুলতে হবে। এরপর যত সম্ভব পারা যায় কাধ উপরের দিকে তুলে এই অবস্থায় ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ড থাকতে হবে। তারপর আবার আস্তে আস্তে শুয়ে পড়তে হবে। এভাবে কয়েকবার পুনরাবৃত্তি করলে মেরুদন্ডের জন্য খুবই ভালো।

৯। শেষ কথা

আপনার যদি দীর্ঘদিন ধরে কোমরের ব্যথার সমস্যায় ভোগান্তি পোহাতে হয় তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের নিকট যাওয়া উচিত।

আরেকটি কথা সবসময় মনে রাখবেন কোমরের ব্যথা ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ব্যথানশক কোন ওষুধ খাবেন না।

আশাকরি কোমরের ব্যথা কমানোর উপায় সম্পর্কে আর্টিকেলটি সবার কাছে ভালো লেগেছে।

Follow topics bangla facebook page

Topicsbangla

জানা ও অজানা বিষয় গুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরা আমাদের মূল লক্ষ।আমাদের সাথেই থাকুন আশা করি উপকৃত হবেন।☺☺

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button