Online tipsBlogging & Wordpress

সঠিক পথে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করুন

আজকে সঠিক পথে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

বর্তমানে লোভনীয় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এমনভাবে অনলাইনে কাজ করা সম্পর্কে উপস্থাপন করে যা থেকে মনে হয় একটি কম্পিউটার আর ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই অনলাইন থেকে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আসলেই কি বিষয়টা এত সহজ?

যারা অনলাইন সম্পর্কে তেমন জানেন না বা নতুন তাদেরকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন খারাপ চক্র এবং খারাপ লোক টাকা আয় করার উৎস বানিয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার বাটপারি মাধ্যম হচ্ছে অন্যদের কোর্স করিয়ে টাকা ইনকাম করা। আমি বলছি না সবাই খারাপ এর মধ্যে কিছু মানুষ আছে যাদের কোর্স করলে সত্যিই আপনি উপকারী হবেন। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই কোর্স করানোর নামে বা কোর্স বিক্রি করে টাকা আয় করছেন।

বিভিন্ন ব্লগ সাইটে অনেক আর্টিকেল পেয়ে থাকবেন যেখানে তাদের সাইটের মাধ্যমে ইনকাম বা অন্যের থেকে টাকা নিয়ে আর্টিকেল লিখে থাকে যা পাঠকদের উপকারের থেকে ক্ষতিগ্রস্ত বেশি হয়। তাই আমার পরামর্শ থাকবে সেই সব সাইট গুলো এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন।

টপিক্স বাংলা টিম সব সময় পাঠকদের কথা মাথায় রেখে আর্টিকেল লেখেন এবং সঠিক তথ্য দিয়ে পাঠকদের সহয়তা করার চেষ্টা করেন। এর পিছনে টপিক্স বাংলার টিমের কোন স্বার্থ থাকে না।

আমি আজকে আপনাদেরকে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার সেরা মাধ্যমগুলো সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করব। যেগুলো কাজের মাধ্যমে অনলাইনে দীর্ঘদিন রাজত্ব করতে পারবেন এবং এই কাজগুলোকে আপনার প্রফেশনাল হিসাবে নিতে পারবেন।

আপনাদেরকে বোঝানোর জন্য অনেক কথাই বলে ফেললাম তাহলে চলুন সময় নষ্ট না করে মূল টপিকে যাওয়া যাক।

কারা এই পেশাগুলোর সাথে যুক্ত হবেন?

সত্যি কথা বলতে অনলাইনে কাজ করা এত সহজ একটি বিষয় না যা সবার দ্বারা সম্ভব হবে। আমি কাউকে হতাশ করছি না যেটা সত্যি সেটা তুলে ধরার চেষ্টা করছি।

আপনি যদি চান ১০ -১৫ দিন কাজ শিখেই অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করা শুরু করবেন তাহলে এই আর্টিকেল আপনার জন্য না।

অনলাইনে কাজ করতে হলে সর্বপ্রথম প্রয়োজন ধৈর্য। আপনার মাঝে ধৈর্য কম থাকলে এই সেক্টরে ভালো কিছু করতে পারবেন না। যাদের ফ্যামিলিগত সমস্যা বা তাৎক্ষণিক টাকার প্রয়োজন হয় তাহলে আমার পরামর্শ থাকবে এই সেক্টরে না আশাটাই ভালো অন্যদিকে চেষ্টা করুন। কারণ অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে চাইলে কয়েক মাস আগে কাজ শিখতে হবে তারপর ধৈর্য সহকারে চেষ্টা করতে হবে তাহলে সফলতা অর্জন করা সম্ভব।

নতুন কিছু শিখা এবং স্কিল বাড়ানোর মনোভাব থাকতে হবে। আপনি যদি ভেবে থাকেন একবার কাজ শিখে সেটির মাধ্যমে সারাজীবন ইনকাম করবেন তাহলে একদম ভুল ভাবছেন। এটা অনলাইন দুনিয়া এখানে প্রতিনিয়ত কাজের আপডেট হয়। আপডেটের সাথে যদি নিজেকে মানিয়ে নিতে না পারেন তাহলে এই সেক্টরে ভালো কিছু করতে পারবেন না। তাই নতুন কিছু শিখার মনোভাব মনের মধ্যে পোষণ করতে হবে এবং অবসর সময়ে নিজের স্কিল বাড়ানোর দিকে সময় দিতে হবে।

প্রতিটি মানুষের চিন্তা ভাবনা আলাদা এবং তাদের সব কাজ ভাল লাগবে এমন কোন কথা নয়। অনেকে আছেন যারা অন্যের ইনকাম দেখে এই সেক্টরে আসতে চাচ্ছেন। তাদেরকে আমি বলতে চাই অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে হলে দীর্ঘ সময় আপনাকে বাসার মধ্যে কাটাতে হবে এবং কম্পিউটার সামনে বসে থাকার ধৈর্য ক্ষমতা থাকতে হবে।যদি আপনার পক্ষে এটি সম্ভব হয় তাহলে এই সেক্টর আপনাকে স্বাগতম।

আর যদি আপনার মাঝে ধৈর্য ক্ষমতা বা দীর্ঘ সময় বাসায় থাকার মতন ধৈর্য শক্তি না থাকে তাহলে অন্য কোন কাজ করার চেষ্টা করুন শুধুমাত্র অনলাইনে কাজ করেই অনেক টাকা ইনকাম করা যায় তা পুরোপুরি ভুল। অন্য কাজ করেও আপনি ক্যারিয়ার গঠন করতে পারবেন এবং সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার সেরা মাধ্যমগুলো

এতক্ষণ ধরে আপনাদের সাথে অনেক কথাই বলে ফেললাম এখন সময় এসেছে মূল বিষয় নিয়ে আলোচনা করার। আমার জানা মতে অনলাইনে কাজ করার হিসাব ছাড়া মাধ্যম রয়েছে। মানুষ অনেক ভাবে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করেছে। অনলাইনে সৎ পথে এবং অসৎ পথে টাকা ইনকাম করার পথ রয়েছে। আমি চাইবো না কেউ অসৎ পথে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করুন। আমার পরামর্শ থাকবে সারা জীবন সৎপথে থাকার এবং সৎ পথে টাকা ইনকাম করার চেষ্টা করবেন।

আমি আজকে আপনাদেরকে যে মাধ্যমগুলো শেয়ার করবো সেগুলো কাজ শিখার পর সৎপথে টাকা আয় করতে পারবেন।

তাহলে চলুন অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার সেরা মাধ্যমগুলো সম্পর্কে জেনে নিই।

১। ডিজিটাল মার্কেটিং

সর্বপ্রথম আমি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করলাম, এর কারণ হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ শিখে অল্প দিনের মধ্যে ইনকাম করা সম্ভব। অন্য সেক্টর গুলোতে যে রকম দীর্ঘ সময় কাজ শিখার পরে টাকা আয় করা যায়, কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং ২-৩ মাসে কাজ শিখে, আপনার যদি সেই রকম মেধা থাকে তাহলে আয় শুরু করে দিতে পারবেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং কি? অনেকেই ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে জানেন না বা ধারণা নেই, এক কথায় যদি বলতে চাই ডিজিটাল মার্কেটিং বলতে ইলেকট্রনিক যন্ত্র বা মাধ্যম ব্যবহার করে সম্পাদিত বিপণনকে বোঝায়।

এত কঠিন কথা বুঝতে পারলেন না? আসুন সহজভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং কি জেনে নিই, অনলাইনে পণ্য বিক্রয় বা বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে সবার সামনে সেটা তুলে ধরার জন্য যেই পদক্ষেপগুলো গ্রহণ করা হয় তাকে ডিজিটাল মার্কেটিং বলা হয়। যেমনঃ এসইও অপটিমাইজ, ফেসবুক বুষ্ট, ইন্সটাগ্রাম বুস্ট, এফিলিয়েট মার্কেটিং ইত্যাদি

এক নজরে ডিজিটাল মার্কেটিং করার মাধ্যম গুলো দেখে নিন

🔸SEO
🔸Google algorithm
🔸Keywords research
🔸Contant development
🔸On page optimization
🔸Google webmaster tools
🔸Off page optimization
🔸All social media marketer
🔸YouTube marketing channel optimization
🔸YouTube marketing video optimization
🔸E-commerce bussiness
🔸Self Branding

ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক বড় একটি সেক্টর, এখানে বিভিন্ন উপায়ে অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করা যায়। এরমধ্যে সবগুলো উপায় সম্পর্কে হালকা ধারণা নিয়ে যেটি আপনার কাছে ভালো লাগে সেটি শিখতে পারেন।

আমি ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া কিভাবে মার্কেটিং করতে হয় সেই সম্পর্কে পোস্ট লিখে ফেলেছি নিচে ক্লিক করে পড়ে নিন।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি? সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে আয় করুন।

২। ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপার

বর্তমানে হিসাব ছাড়া ওয়েবসাইট রয়েছে এবং প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বাড়ছে সে ক্ষেত্রে এই সেক্টরে কাজের পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতগুলো ওয়েবসাইট বানাতে যে রকম ওয়েব ডেভেলপার এর প্রয়োজন হয় তার পাশাপাশি সেই সাইটগুলো পরিচালনা করার জন্য কিন্তু ওয়েব ডেভলপারের প্রয়োজন হবে, তাই একজন দক্ষ ওয়েব ডেভলপারের বর্তমান বাজারে প্রচুর ডিমান্ড রয়েছে।

ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপার কাজ হচ্ছে ওয়েবসাইট সুন্দর আকর্ষণীয় ডিজাইন করা এবং লাইভ করে পূর্ণরূপ দেওয়া।

ওয়েব ডিজাইন হচ্ছে একটি সাইটকে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলা কে বলা হয়। আর ওয়েব ডেভলপার হচ্ছে সাইটের সার্ভার এবং ব্যাক ইন্ডের সমস্ত কাজগুলোকে বলা হয়।

ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভেলপার এর কাজ শিখতে একটু বেশি সময় লাগে। আপনারে যদি বোঝার ক্ষমতা বেশি থাকে তাহলে ছয় মাসের মধ্যেই ওয়েব ডিজাইনের কাজ আয়ত্ত করতে পারবেন আর ওয়েব ডেভেলপার এর কাজ শিখতে আরো এক থেকে দুই বছরের মতন সময় লাগবে। অনেকেই শুধুমাত্র ওয়েব ডিজাইন শিখে বা শুধুমাত্র ওয়েব ডেভলপার শিখে, আবার অনেকেই দুইটা কাজ একসঙ্গে আয়ত্ত করতে পারে। আপনার কাছে যেটা ভালো লাগবে সেটা শিখার চেষ্টা করুন।

৩। গ্রাফিক্স ডিজাইন

অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার আরেকটি সেরা মাধ্যম হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন।

আপনি যদি এডিটিং করতে বা আকা আঁকি করতে পছন্দ করেন, তাহলে আমি মনে করি আপনার জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন বেস্ট হবে।

বর্তমান সময়ে গ্রাফিক ডিজাইন এর প্রচুর চাহিদা রয়েছে এর কারণ হচ্ছে বর্তমানে অনলাইনে বিজ্ঞাপন বা অন্যান্য কাজের জন্য নানা ধরনের ব্যানার তৈরি করতে হয়, যার কারণে এডিটরদের চাহিদা দিন দিন বেড়ে চলছে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন হচ্ছে ফটো এডিটিং করা, সময়ের সাথে সাথে এই গ্রাফিক্স ডিজাইনের সেক্টর আরো বড় হবে এবং এর চাহিদা দিন দিন বাড়বে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজ অল্প সময়ের মধ্যেই আয়ত্ত করতে পারবেন যদি ভালোভাবে চেষ্টা করেন। মার্কেটে বর্তমানে প্রচুর গ্রাফিক্স ডিজাইনার রয়েছে তাই এই সেক্টরে কাজ করলে অবশ্যই নিজের সেরাটা প্রকাশ করতে হবে তাহলেই আপনি সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

৪। ভিডিও এডিটিং

হ্যাঁ বন্ধুরা আপনি যদি ভালো ভিডিও এডিটিং করতে পারেন তাহলে কিন্তু অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যদি ভালো ভিডিও এডিটর হতে পারেন তাহলে শুধুমাত্র অনলাইনে নয় অফলাইনে প্রচুর টাকা আয় করার সুযোগ রয়েছে। অনেকেই বলে থাকেন বর্তমান যুগ হচ্ছে ভিডিওর যুগ কারণ সব জায়গাতেই এখন ভিডিও আর মানুষ বিনোদনের সব থেকে বড় মাধ্যম ভিডিওকেই বেছে নিয়েছে।

সেক্ষেত্রে বিবেচনা করলে ভিডিও এডিটিং এর চাহিদা অনেক বেশি রয়েছে তাই আপনি যদি ধৈর্য সহকারে যদি ভিডিও এডিটিং এর কাজ শিখতে পারেন তাহলে ভবিষ্যতে খুব ভালো ফলাফল পাবেন আশা করি।

৫। অ্যাপ ডেভেলপার

বর্তমান সময়ে ডেভলপারদের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। আপনি যদি একজন ভালো অ্যাপ ডেভেলপার হতে পারেন তাহলে অন্যদের অ্যাপস এর সমস্যা সমাধান করে এবং নিজে অ্যাপস তৈরি করে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি কোন ভাল মানের অ্যাপ তৈরি করতে পারেন সেটি প্লে স্টোরে বিক্রি করে প্রচুর টাকা ইনকাম করা সম্ভব এবং কোন বড় কোম্পানির জন্য অ্যাপ তৈরি করতে প্রচুর টাকা বাজেট নির্ধারণ করা হয় সেক্ষেত্রে একজন  অ্যাপ ডেভেলপারের ডিমান্ড অনেক বেশি।

৬। ব্লগিং করুন

এই যে আমার আর্টিকেল পড়ছেন এটাকে ব্লগিং বলা হয়, সহজভাবে বলতে গেলে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মানুষকে বিভিন্ন সম্পর্কে জানানোর জন্য যেই আর্টিকেলগুলো পাবলিশ করা হয় তাকে ব্লগিং বলা হয়।

আপনি যদি লেখালেখি করতে পছন্দ করেন তাহলে আমি মনে করি ব্লগিং আপনার জন্য বেস্ট হবে। কিন্তু ব্লগিং করতে হলে প্রয়োজন প্রচুর ধৈর্য শক্তি কারণ এই সেক্টরে ভালো কিছু করতে হলে এক থেকে দুই বছরের বেশি সময় লেগে যেতে পারে।

আপনার সাইট যদি একবার ভালো পজিশনে দাঁড় করাতে পারেন তাহলে কাজ না করলেও আপনার ইনকাম আসতে থাকবে। আমার পরামর্শ থাকবে যারা লেখালেখি করতে পছন্দ করেন তারা শখের বসে ব্লগিং করতে পারেন, যেমনটা আমি করি।

আরো পড়ুনঃ

ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করুন

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি? সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে আয় করুন।

ফেসবুক থেকে আয় করার উপায় গুলো সম্পর্কে জেনে নিন

কোথায় থেকে কাজ গুলো শিখবো

এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে কোথায় থেকে কাজ গুলো শিখতে হবে।

বর্তমান সময়ে অনেক প্রতারক রয়েছে যারা নতুনদের সরলতার সুযোগ নিয়ে আয় করার চেষ্টা করেন এবং ধান্দাবাজি করে থাকেন। আমার পরামর্শ থাকবে তাদের থেকে দূরে থাকবেন। তাছাড়া আপনার টাকা গুলো নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি সময়গুলো নষ্ট হবে কিন্তু কাজের কাজ কোন কিছুই হবে না।

অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করার যে মাধ্যমগুলো আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি সেগুলো অনলাইনের মাধ্যমে শিখতে পারবে।

অনলাইনে রয়েছে ফ্রি প্রচুর পরিমাণে আর্টিকেল এবং টিউটোরিয়াল যেগুলো মাধ্যমে কাজ শিখতে পারবেন। আপনার কাজ হবে শুধু google, youtube সহ আরো যেগুলো মাধ্যম রয়েছে সেগুলো থেকে খুঁজে বের করে কাজ শেখা।

আমার পরামর্শ থাকবে প্রথম দুই তিন মাস নিজে নিজে চেষ্টা করুন। যদি আপনার পক্ষে একা একা সম্ভব না হয় তাহলে দেশের যেই ভালো আইটি সেক্টর গুলো রয়েছে সেগুলোতে যোগদান দিয়ে কাজ শিখতে পারেন। অবশ্যই কোন আইটি সেক্টরে বা কোন কোর্সে ভর্তি হওয়ার আগে সেটার সম্পর্কে ভালোভাবে যাচাই বাছাই করে তারপরই ভর্তি হবেন কারণ বর্তমানে অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে প্রতারণা বেড়ে গিয়েছে।

আমি অনেক খোঁজাখুঁজির পরে কয়েকটি টিউটোরিয়াল খুঁজে পেয়েছি যেগুলো আমার কাছে সহজে লেগেছে আপনি চাইলে সেগুলো ফলো করতে পারেন। আপনার কাছে যদি ভালো না লেগে থাকে বা কঠিন লাগে তাহলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী টিউটোরিয়াল বের করে সেটি ফলো করে কাজ শেখার চেষ্টা করুন।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর ফ্রি কোর্স

ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভলপারের ফ্রি কোর্স

গ্রাফিক্স ডিজাইনের ফ্রী কোর্স

ভিডিও এডিটিং এর ফ্রি কোর্স

অ্যাপস ডেভেলপারের ফ্রি কোর্স

ব্লগিং এর ফ্রি কোর্স

Follow topics bangla facebook page

Topicsbangla

জানা ও অজানা বিষয় গুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরা আমাদের মূল লক্ষ।আমাদের সাথেই থাকুন আশা করি উপকৃত হবেন।☺☺

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button