Life Style

ডিপ্রেশন থেকে মুক্তির উপায় জেনে নিন

ডিপ্রেশন  হলো একটি মানসিক রোগ। আমাদের জীবন সুখ আর দুঃখ নিয়ে পরিচালিত হয়। কিন্তু কিছু মানুষ আছে আমাদের মাঝে যারা দুঃখ পেলে নিজেকে খুব অসহায় ভাবে এবং আস্তে আস্তে ডিপ্রেশনে ভুগতে থাকে। প্রতিটা জীবনে যে রকম সুখ থাকে সেরকম দুঃখ আসবে সেটা মেনে নিয়ে বাঁচতে হয়।

১। ডিপ্রেশনের কারণ

ডিপ্রেশন মানুষের জীবনে যে কোন কারনেই আসতে পারে। মানুষ যখন কোন ছোট বা বড় বিষয় নিয়ে মন খারাপ করে। প্রতিটি মানুষের চিন্তা ভাবনা যে এরকম আলাদা ঠিক তাদের কষ্টের কারণটা আলাদা হয়। কেউ পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতে পারেনি সেই কারণে চিন্তায় পড়ে যাই যেটা এক সময় ডিপ্রেশনের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আবার কেউ প্রেমে ব্যর্থ হয়েছে যেটা তার পক্ষে মেনে নেওয়া কষ্টদায়ক যার কারণে ডিপ্রেশনে চলে যায়। আবার কেউ ছোটখাটো বিষয় নিয়ে ডিপ্রেশনে পড়ে যায়। অনেক মানুষ আছে যারা নিজেকে সবার থেকে ছোট মনে করে হীনমন্যতায় ভুগে আবার অপমান করলে সেটা সহজে মেনে নিতে পারে না। যদি কেউ কোন ভুল কাজ করে ফেলে সেটার জন্য মানুষ যখন তাকে বারবার অপমান করে যেটা তার জন্য কষ্টদায়ক যার ফলে একসময় ডিপ্রেশনে রূপান্তর হয়।

বৈজ্ঞানিক গবেষণায় দেখা গেছে আমাদের শরীরে যখন মেলাটোনিন এবং সেরোটোনিন নামক দুটি হরমোন ক্ষরণ ঠিকভাবে হয় না তখন ডিপ্রেশনের পড়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।

২। ডিপ্রেশনে পড়ার লক্ষণ

ডিপ্রেশনের কিছু লক্ষণ আছে যেগুলোর মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারবো যে আমরা ডিপ্রেশনের মাঝে আছি। কোন মানুষ যখন ডিপ্রেশনের মাঝে থাকে তখন সে বুঝতে পারে না আসলে সে ডিপ্রেশনে ভুগছে। ডিপ্রেশনে পড়ার লক্ষণ গুলো হল

১ঃ নিজেকে সব সময় একা মনে করা। সবার থেকে নিজেকে আলাদা করে রাখা। একাকীত্ব সময় পার করতে ভালো ভালোলাগা।

২ঃ দিনের বেশিরভাগ সময় মন খারাপ থাকে। সকালে মন ভালো থাকলে আবার বিকেলে মন খারাপ থাকে।

৩ঃ কোন কিছু করতে ভাল লাগেনা কোন কাজ করতে চায়না। কোন কাজ করার জন্য উৎসাহ না পাওয়া। কাজের সুযোগ থাকার পরও অলসতার কারণে করে না। আবার খেলাধুলা ও পড়াশোনা করতে ভালো না লাগিলে বুঝতে হবে ডিপ্রেশনে ভুগছে

৪ঃ ডিপ্রেশনে পড়লে মানুষ নিজের যত্ন করাটাও ভুলে যায়। গোসল না করা ইচ্ছা করে খাওয়া-দাওয়া অনিয়ম করে। নিজের প্রতি খেয়াল রাখার সময় থাকেনা তখন।

৫ঃ ডিপ্রেশনে থাকলে মানুষের চাহিদা অনেক গুণে বেড়ে যায়। মনে হয় তার জীবনে কিছুই পাওয়া হলো না। অল্পতে পেয়ে সে সন্তুষ্ট থাকতে পারে না একটা জিনিস পাওয়ার পর আরো পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা তৈরি হতে থাকে।

৬ঃ ডিপ্রেশন এতটা খারাপ যে মানুষ তখন নিজেকে নিয়ে ভাবার সময় পায়না। ডিপ্রেশন পড়লে মানুষ তার কষ্ট ভোলার জন্য নিজেকে শারীরিক ভাবে কষ্ট দেয়।

৭ঃ ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য মানুষ ভুল পথে পা বাড়ায়। তারা মাদকের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ে এবং নানা ধরনের অনৈতিক কাজের সাথে জড়িয়ে পড়ে।

৮ঃ ঠিকভাবে না ঘুমানো কখনো ঘুমায় না আবার কখনো সব সময় ঘুমাতে ইচ্ছা করে।

৯ঃ যারা একটু বেশি ইমোশনাল তারা খুব সহজেই ডিপ্রেশনে পড়ে যায়। যখন সে নিজেকে বুঝাতে পারেনা তার চাওয়া পাওয়া গুলো তখন সে এটা মেনে নিতে পারে না তাই সহজে ডিপ্রেশনে পড়ে যায়।

১০ঃ একটুতেই রেগে যাওয়া। কেউ যদি ভালো কথা বলে তাহলে রেগে যায়।

 ডিপ্রেশন থেকে মুক্তির উপায়

আমাদের মাঝে কে এমন আছে যে কখনো ডিপ্রেশন এর মাঝে পড়েনি। কম বেশি সবার জীবনে ডিপ্রেশন জিনিসটা হাতছানি দিয়েছে। আর এই ডিপ্রেশন আমাদের জীবনকে আস্তে আস্তে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে। তাই যদি কেউ ডিপ্রেশনের ভুগতে থাকে তার থেকে বের হওয়ার উপায় গুলো হল

১। নিজের প্রতি খেয়াল রাখতে শিখুন

নিজেকে নিয়ে ভাবা শুরু করতে হবে। মানুষ যখন ডিপ্রেশনে থাকে তখন শরীরের প্রতি খেয়াল রাখে না। যার ফলে দিন দিন শরীরের অবস্থা খারাপ হতে থাকে। শরীর যদি খারাপ থাকে তাহলে মন মানসিকতা এমনিতে খারাপ থাকে। তাই ব্যায়াম করুন তার পাশাপাশি ভালো মানের খাবার গ্রহণ করুন।

২। নিজেকে ব্যস্ত রাখুন

সব সময় চেষ্টা করুন নিজেকে কোন কাজে ব্যস্ত রাখার জন্য। আপনি নিজেকে যত ব্যস্ত রাখতে পারবেন আপনি তত তাড়াতাড়ি খারাপ মুহূর্তগুলো ভুলে ভুলে যাবেন। তাই খেলাধুলা বা অন্য যেকোনো ভালো কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন।

৩। বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন

বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিলে খুব সহজে মন ভালো হয়ে যায়। আর তাই ডিপ্রেশন থেকে বের হওয়ার জন্য বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন সময় কাটান দেখবেন আস্তে আস্তে ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পেয়ে যাচ্ছেন

৪। একা সময় কাটান

এই সময় একা সময় কাটানো খুব প্রয়োজন। আপনি জীবনে যে ভুলগুলো করেছেন সেটা থেকে শিক্ষা নিন। এবং নিজেকে বোঝার চেষ্টা করুন। ভালো বিষয়গুলো নিয়ে ভাবুন কিভাবে আগামী দিনগুলো ভালোভাবে কাটানো যায় সেটা নিয়ে চিন্তা করুন।

৫। দূরে কোথাও ঘুরতে যান

ডিপ্রেশন এর মধ্যে থাকলে দূরে কোথাও ঘুরতে চলে যান। এতে আপনার মনের প্রশান্তি মিলবে। সাগর বা পাহাড় এলাকাগুলোতে ঘুরতে চলে যান দেখবেন ডিপ্রেশন আস্তে আস্তে কমতে শুরু করেছে।

৬। অতীত নিয়ে ভাবা বন্ধ করুন

যে মানুষগুলো অতীত নিয়ে বেশি ভাবে তারা খুব সহজে ডিপ্রেশনে চলে যায়। মানুষের জীবনে খারাপ মুহূর্ত আসাটা খুবই স্বাভাবিক কিন্তু সেটা নিয়ে যদি ভাবনায় পড়ে থাকেন তাহলে দিন দিন আপনি আরও ডিপ্রেশনের মধ্যে চলে যাবেন। তাই অতীতে যেই খারাপ অভিজ্ঞতা উপলব্ধি করেছেন সেটিকে শিক্ষা হিসাবে নিয়ে ভবিষ্যতে কথা ভাবতে হবে

৭। শেষ কথা

একজন মানুষের জীবনে ডিপ্রেশন জিনিসটা খুবই খারাপ। কারণ এটি মানুষের জীবনকে ধ্বংস করে দেয়। ডিপ্রেশনের কারণে মানুষ আত্মহত্যার মত মহাপাপ কাজটি করে ফেলে। আবার কেউ কেউ মাদকের সাথে জড়িয়ে পড়ে নিজের জীবনকে শেষ করে ফেলে। আমাদের ছোট এই জীবনে অনেক চাওয়া পাওয়া থাকতে পারে। কিন্তু সেগুলো যদি না পাওয়া হয় তাহলে কষ্ট পাওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। আজ থেকে আমরা চেষ্টা করব সব সময় ভালো থাকার।  জীবনে যত হাসি খুশি থাকতে পারবেন জীবনটা তত সুন্দর ভাবে উপভোগ করতে পারবেন।

Follow topics bangla facebook page

আরো পড়ুনঃ

স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করার উপায়। 2021

মন ভালো করার উপায়।2021

Topicsbangla

জানা ও অজানা বিষয় গুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরা আমাদের মূল লক্ষ।আমাদের সাথেই থাকুন আশা করি উপকৃত হবেন।☺☺

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button